মা হতে চান বিপাশা বসু

বিয়ের পর কাজ ফেলে সংসারে মন দিয়েছিলেন বলিউড তারকা বিপাশা বসু। দীর্ঘদিন পর জীবনসঙ্গী করণ সিং গ্রোভারকে সঙ্গী করে আবার দেখা দিয়েছেন ‘ডেঞ্জারাস’ নামের এক ওয়েব সিরিজে। বিবাহিত জীবনের পঞ্চম বছরে পা দেওয়ায় বারবার উচ্চারিত হয়েছে একটি প্রশ্ন। কবে মা হবেন বিপাশা? একই উপলব্ধি এখন তাঁরও।

মিড ডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিপাশা বসু জানান, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে এক নামী প্রযোজকের ছবিতে সাইন করেছিলেন। বাড়ি ফিরে দেখেন, সেই প্রযোজকের বার্তা, ‘তোমার হাসি খুব মিস করছি।’ অবস্থা বেগতিক বুঝে তাঁকে ফিরতি মেসেজ দিয়েছিলেন বিপাশা। এমনভাবে লিখেছিলেন, যাতে মনে হয়, ভুল করে ওই প্রযোজকের কাছে সেটা চলে গেছে। তারপর নিজের ম্যানেজারকে দিয়ে সেই অগ্রিম টাকা ফেরত পাঠিয়েছিলেন, বাতিল করেছিলেন চুক্তি। বিপাশার ভাষায়, ‘তখন বয়স অনেক কম ছিল। তবু এ ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখার শুরু থেকেই এসব ব্যাপারে আমি খুব সচেতন আর শক্ত অবস্থানে ছিলাম। তাই দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এসব নিয়ে কোনো ঝামেলা হয়নি।’

২০১৫ সালে ‘অ্যালন’ ছবির সেটে করণ-বিপাশার প্রেম। এর আগে ২০১৪ সালে করণের দ্বিতীয় স্ত্রী জেনিফার উইঙ্গেটের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস ‘সিঙ্গেল’ই ছিল করণের। পরের বছর ৩০ এপ্রিল ধুমধাম করে বিয়ে করেন করণ-বিপাশা। সেটি ছিল বর্তমানে ৪১ বছর বয়সী বিপাশার প্রথম ও ৩৮ বছর বয়সী করণের তৃতীয় বিয়ে।

কবে মা হচ্ছেন বিপাশা? এ প্রসঙ্গে এই মডেল ও অভিনেত্রী বলেছেন, ‘দেখি। সময় তো ফুরিয়ে যাচ্ছে না! সৃষ্টিকর্তা যেদিন চাইবেন, সেদিন হয়তো…। তবে হ্যাঁ, আমি অবশ্যই মা হতে চাই। মা হওয়ার জন্য তো গর্ভধারণ আবশ্যক নয়। ভারতে এমন অনেক শিশু আছে, যাদের মা-বাবা নেই। তাদের কাউকে দত্তক নেওয়ার আইডিয়াটাও দারুণ।’

‘জিসম’, ‘রাজ থ্রি’, ‘ধুম টু’সহ বেশ কিছু ছবি করেছিলেন বিপাশা। তাঁর সময়ের সবচেয়ে আবেদনময়ী নায়িকাদের একজন হিসেবে গণ্য করা হয় বিপাশাকে। বিপাশা বসু ১৯৭৯ সালের ৭ জানুয়ারি নয়াদিল্লিতে বাঙালি হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নয়াদিল্লিতে জন্মগ্রহণ করলেও পরবর্তীকালে তিনি তাঁর মা–বাবার সঙ্গে কলকাতায় ফিরে আসেন। এক সাক্ষাৎকারে বিপাশা জানিয়েছেন, তিনি চিকিৎসাশাস্ত্রে পড়াশোনার জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করলেও মডেলিং এবং অভিনয়ের জগতে এসেছেন কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই, হঠাৎ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *