গলাব্যথা ও সর্দি সারাতে মধু কীভাবে খাবেন

মধুর গুণাগুণের কথা বেশিরভাগ মানুষের জানা। সর্দি-কাশি হলে বা ঠাণ্ডা লাগলে অনেকেই মধু খেতে বলেন। এ ছাড়া অতিপ্রাচীনকাল থেকেই আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় মধুর ব্যবহার হয়ে আসছে।

 

এ বিষয়ে বারডেম জেনারেল হাসপাতালের প্রধান পুষ্টিবিদ আখতারুন নাহার আলো যুগান্তরকে বলেন, প্রাকৃতিকভাবে পাওয়া মধুর রয়েছে অনেক গুণ। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান, যা গলা, বুকে জমে থাকা কফ পরিষ্কার করে। মধু সর্দি-কাশি নিরাময়ে অ্যান্টিবায়োটিকের চেয়ে বেশি কার্যকর।

আসুন জেনে নিই মধুর উপকারিতা-

কাশি, নাক বন্ধ ও গলাব্যথা সারাতে মধু খুব ভালো কাজ করে। এ ছাড়া শরীরের অনেক উপকার করে। এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এ ছাড়া শ্বাসকষ্টের সমস্যায়ও মধু খেতে পারেন।

এ ছাড়া মধু শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। প্রতিদিন পরিমিত পরিমাণে মধু খেলে চোখের স্বাস্থ্য, পেটের সমস্যা, ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যাগুলো কমে যায়।

আর মধুতে রয়েছে উচ্চমাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ক্যান্সার, উচ্চরক্তচাপ ও ত্বকজনিত সমস্যা দূর করে। প্রতিদিন নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় মধু খেলে ডায়াবেটিস ও হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণে থাকে। পরিমিত পরিমাণ মধু রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। এ ছাড়া উপকারী কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায়, যা হৃদযন্ত্রের জন্য উপকারী।

মধুতে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, যা দাঁতের ব্যথাভাব ও প্রদাহ কমে ও পাকস্থলীও ভালো রাখে।

কীভাবে খাবেন

গলাব্যথা ও সর্দি সারাতে মধু কীভাবে খাবেন-

গলায় ব্যথা হলে এক চামচ মধু খেতে পারেন। এক গ্লাস হালকা গরম পানি বা চায়ে দুই টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে পান করতে পারেন।

এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে এক টেবিল চামচ মধুর সঙ্গে সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে পান করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *